সাবেক সঙ্গীকে ভুলে থাকার ৭ উপায়!

সত্যিকারের প্রেম কিন্তু স্বর্গ থেকে আসে। তবে এই স্বর্গের ভালোবাসা সব সময় ধরে রাখা যায় না। কারণে-অকারণে সম্পর্কে বাজে বিষাদের সুর। প্রযুক্তির এই যুগে বিশ্বে সম্পর্ক যেমন খুব দ্রুত গড়ে আবার তেমনি দ্রুত ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনাও থাকে। তবে মনে রাখবেন প্রেম ভালোবাসার উল্টো পিঠেই বসবাস করে বিচ্ছেদ, ঘৃণা।

তবে যা কিছু হোক না কেন। যখন বিচ্ছেদ ঘটে তখন আপনার জীবন থেকে হয়তো অনেক কিছু হারিয়ে যায়। মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন আপনি। কিন্তু কী করে ভুলে যাবেন আপনি এত দিন ভালোবেসে আসা খুব আপন আর প্রিয় মানুষটিকে?

সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকাকে দ্রুত ভুলে যাওয়ার বৈজ্ঞানিক কিছু উপায় নিয়ে লিখেছে পেয়ার্ড লাইফ ডটকম ওয়েবসাইটটি।

অতীত নিয়ে পড়ে থাকবেন না

অতীতকে ভোলা যদিও অনেক কষ্টের বিষয় তবে মানুষ ইচ্ছে করলে সব কিছু পারে। বিচ্ছেদের পর অনেকে পুরনো সম্পর্ককে অস্বীকার করতে চায় কিন্তু দেখা গেছে এই অস্বীকৃতি সমস্যাকে আরও বাড়িয়ে তোলে। তাই নিজের ভবিষ্যতের জন্য অতীতের খারাপ দিনগুলোকে ভুলে যান। অতীতের কষ্টের দিনগুলো আপনার পথের কাঁটা হয়ে দাঁড়াবে।তাই যা ঘটেছে স্বীকার করুন কিন্তু সেখানে পড়ে থাকবেন না




পুরনো স্মৃতি ভুলে নতুন স্মৃতি তৈরি করুন

পুরনো স্মৃতি ভুলে নতুন স্মৃতি তৈরি করুন। কারণ পুরনো স্মৃতি আপনার জন্য শুধুই বেদনাই বয়ে নিয়ে আসবে। হয় সাবেক প্রেমিক বা প্রেমিকার সঙ্গে পছন্দের কোথাও ঘুরেছেন। এবার নতুন নতুন জায়গায় ঘুরে আসুন। বিভিন্ন খেলায় অংশ নিন। জাম্পিং, স্কাইডাইভিং, রক ক্লাইম্বিং, সাইক্লিং, সুইমিং করতে পারেন। নতুন নতুন মজার মজার স্মৃতি তৈরি হলে পুরনো ফিকে হতে শুরু করবে যেটা আপনার জন্য জরুরি।

যোগাযোগ বন্ধ করুন

সঙ্গীর সঙ্গ ত্যাগ করার সবচেয়ে বড় কৌশল হলো তার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করা। বিচ্ছেদের পর যে মানসিক সংকট হানা দেয় তার থেকে কিছুটা মুক্ত হওয়ার জন্য সাবেকের নম্বরটি ডিলিট করে দিতে পারেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্লক করে দিতে পারেন, তার নম্বরটি ভুলতে না পারলে নতুন কিছু নম্বর মুখস্থ করার চেষ্টা করতে পারেন। ভালোর জন্যই এই নির্মম কাজগুলোই আপনাকে করতে হবে।

অনুপ্রেরণার

আপনার জীবনে এমন কোনো আদর্শ ব্যক্তিকে খোঁজেন যে প্রতারণা কিংবা এমন হাজারো কষ্টের ভেতর দিয়ে গিয়েও উঠে দাঁড়িয়েছে। থেমে তো যায়ইনি, বরং এতটা শক্তি নিয়ে এগিয়ে গিয়েছে যে তাকে ছেড়ে যাওয়া মানুষগুলোকেই পস্তাতে হয়েছে পরবর্তীতে।

নতুন অভ্যাস, নতুন নেশা

আপনার প্রেমিক বা প্রেমিকার সঙ্গে দীর্ঘদিন থাকাতে একটা অভ্যাসের বাঁধনে আবদ্ধ হয়ে গেছেন। এখন বিচ্ছেদের পর সেই অভ্যাস থেকে তো বের হয়ে আসতে হবে। এর সেরা উপায় হলো নতুন অভ্যাস তৈরি করা। নতুন কোনো শখ, লেখালেখি, সমাজকল্যাণমূলক কাজ, রান্না, সাঁতার কাটা, সাইকেল চালানো, ছবি আঁকা- এসব কিছুকে আপন করে নিন। নতুন কোনো লক্ষ্যকে খুঁজে নিন। কোনো কিছু নেই এমন ভাবটা ফেরত এলে সেই নতুন লক্ষ্যকে নিয়ে মেতে উঠুন।

নিজেকে ভালোবাসুন

মানসিক চাপ মানুষের ভেতরে হতাশা, অস্থিরতা তৈরি করে। ফলে মানুষ একটা খুঁটির আশ্রয় চায়। অনেকটা ভেসে যাওয়া মানুষের একটা খড়কুটো আঁকড়ে ধরার মতো। এ সময় সম্পর্কের বাজে দিকগুলো মাথায় না এসে প্রাধান্য পায় ভালো সময়গুলো। অন্যের কথা ভাবতে ভাবতে এই সময়টাতে মানুষ যা করে তা হলো নিজের অযত্ন করে। এতে শারীরিক ও মানসিক সমস্যায় আক্রান্ত হয়।

জোর করে ভোলার চেষ্টা নয়

কাউকে ভোলার চেষ্টা করলে তাকে আরও বেশি মনে পড়ে। তাই হঠাৎ করে কাউকে জোর করে ভুলতে চেষ্টা করবেন না। যদি ভুলতে চাওয়া মানুষটির কথা মনে পড়েই যায় তাহলে একদমই চিন্তায় পড়বেন না। কারণ এটা খুবই স্বাভাবিক। চিন্তা না করে নিজের আর সব কাজ ঠিকঠাকভাবে করতে থাকুন, আর কী কারণে সেই মানুষটিকে ভুলতে চাইছেন আপনি সেই বাজে অভিজ্ঞতাটির কথা মনে করুন।



Leave a Comment

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.