যার কারণে আন্ধা হলাম

না, পুরোপুরি অন্ধ এখনো হই নি
তবে আধা অন্ধ হয়েছি
যার কারণে তার নাম রোকসানা রিয়াজ
পেশায় সে ডাক্তার
বয়স বর্তমানে ৫০-৫৫ বছর হবে
কাজ করেন মিরপুরের ওএসবি চক্ষু হাসপাতালে
হয়তো তিনি ঐ হাসপাতালের মালিকপক্ষের একজন।
আমার চোখের লেজার অপারেশন যখন করছিলেন
তখন নিশ্চয়ই নতুন একটা পাজেরো গাড়ির স্বপ্ন দেখছিলেন
তাই তো যথাযথ ইনস্ট্রাকশন দিতে ভুলে গেলেন
অথবা লেজার তৈরির জ্বালানী সাশ্রয় করলেন

অপারেশনের দুই দিন পর তাকে গিয়ে জানালাম
চোখে এখনো সমস্যা আছে
শুনে প্রচণ্ড অপমান ও তিরস্কার করলেন
মেক শিউর করলেন,
আর যাতে কখনো তার কাছে না যাই।
আর কখনো যাই নি,
অপারেশন পরবর্তী জটিলতাসমূহ
একা একাই মোকাবেলা করেছি
দেশের ডাক্তার সম্প্রদায়ের ওপর ভক্তি উঠে গেল
অবশ্য ভক্তি অনেক আগেই উঠে যাওয়ার দরকার ছিল,
যেসব কর্মকাণ্ড করে তারা।

ব্যাপারটা এমন যেন, তারা ডাক্তার হয়েছে
টাকা কামানোর জন্য
মানবসেবার জন্য নয়
তাই বলি, পকেটে টাকা থাকলে সেটা পকেটেই রেখে দিন
উন্নত জীবনের আশায় খরচ করবেন না
কারণ উন্নত জীবন আর পাবেন না
অন্তত যতদিন এদেশে আছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.