মায়ের বিরুদ্ধে স্বাক্ষী দিলেন ঝালকাঠীর সেই সাহসী কণ্যা!

নিজের বাল্য বিয়ে ঠেকিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের উইমেন অব কারেজ পুরস্কারপ্রাপ্ত ঝালকাঠির শারমিন আক্তার তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে আদালতে দ্বিতীয়বারের মত স্বাক্ষী দিয়েছে।

দুপুরে ঝালকাঠির নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এ সাক্ষ গ্রহণ করা হয়।

আদালতের বিচারক অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এসকে.এম তোফায়েল হাসান স্বাক্ষগ্রহণ করেন।সাক্ষীতে শারমিন জানায়, নবম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় ২০১৫ সালের ৬ আগস্ট শারমিনকে চিকিৎসা করানোর কথা বলে তাঁর মা রাজাপুরের বাসা থেকে খুলনায় নিয়ে যান।

সেখানে একটি বাসায় মায়ের কথিত প্রেমিকা স্বপন খলিফার সঙ্গে জোর করে বাল্যবিবাহ দিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে মা। শারমিন কৌশলে পালিয়ে বাসা থেকে বের হয়ে রাজাপুর চলে আসে। ১৬ আগস্ট সেখান থেকে পালিয়ে শারমিন মা ও তার মায়ের কথিত প্রেমিক স্বপনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

স্বাক্ষী গ্রহণের সময় আদালতের কাঠগড়ায় আসামী স্বপন খান ও শারমিনের মা গোলেনুর বেগম উপস্থিত ছিলেন।এদিকে মামলা দায়েরের পরে বিভিন্ন সংগঠন শারমিনের পাশে দাঁড়ায়। অনন্য সাহসিকতার জন্য ২০১৭ সালের ৩০ মার্চ তাকে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সাহসী পুরস্কার (সেক্রেটারি অব স্টেটস ইন্টারন্যাশনাল উইমেন কারেজ অ্যাওয়ার্ড) দেওয়া হয়।



Leave a Comment

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.