মাঝরাতে প্রযোজকের মেসেজ, ক্ষুব্ধ স্বস্তিকা!

কলকাতার জনপ্রিয় এডাল্ট ওয়েব সিরিজ ‘দুপুর ঠাকুরপো’র দ্বিতীয় সিজনে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় অভিনয় করছেন না, এমন গুঞ্জন অনেক আগে থেকেই শোনা যাচ্ছিলো। প্রথম পর্বে ‘উমা বৌদি’ চরিত্রে দর্শকমনে কাঁপন ধরানো স্বস্তিকার বদলে নাকি নতুন পর্বে শ্রীলেখা মিত্রকে দেখা যাওয়ার কথা। না, সেটাও হলো না। সবশেষ অভিনেত্রী ও প্রাক্তন বিগ বস প্রতিযোগী মোনালিসাকে নেয়া হয়েছে বৌদির চরিত্রে।

এরই মধ্যে ‘দুপুর ঠাকুরপো ২’-এর টিজার প্রকাশ হয়েছে। তাতে দেখা গেছে বেশ আবেদনময়ী রূপেই হাজির হয়েছেন মোনালিসা। এবারের সিজনে বৌদির নামও বদলে গেছে। নতুন নাম ‘ঝুমা বৌদি’।

এদিকে ‘দুপুর ঠাকুরপো ২’-এর টিজার প্রকাশের পর এর প্রযোজক স্বস্তিকাকে ধন্যবাদ জানান। তাও আবার সেটা মাঝরাতে মেসেজ পাঠিয়ে। আর তাতেই ক্ষুব্ধ হয়েছেন স্বস্তিকা। ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে নিজের রাগ উগরে দেন এই অভিনেত্রী।




স্বস্তিকা বলেন, মাঝ রাতে ‘দুপুর ঠাকুরপো’-র প্রযোজক আমাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। কিন্তু কেন? তাদের অপেশাদার ব্যবহারের কারণে সিরিজ ছেড়ে দেওয়ার জন্য নাকি গত চার মাসে তারা একটি চিত্রনাট্য ও পরিচালক না দিতে পারার জন্য অথবা ১০ দিন ধরে কেউ কোনও যোগাযোগ না করার জন্য?

স্বস্তিকা আরো বলেন, এমন মানুষগুলোর স্পর্ধা এখন আর অবাক করে না। এদের এই অহঙ্কার আর স্পর্ধাই ইন্ডাস্ট্রির অনেক মানুষের প্রাণ কেড়েছে। টিভি মিডিয়াও সেই পথেই এগোচ্ছে। এই সংস্থা নিজেদের নতুন কাস্ট নিয়ে এতটাই অখুশি যে আমায় বিরক্ত না করে পারছে না। আর অমিত গঙ্গোপাধ্যায়, ‘আমরা আবার একসঙ্গে কাজ করব’- এমন বাজে কথা আর লিখবে না। দ্বিতীয়বার নিজের ‘আমরা’র মধ্যে আমাকে রাখার আগে অনুমতি নেবে আর জিজ্ঞেস করবে আমি কাজ করতে ইচ্ছুক কি না।

প্রসঙ্গত, ‘দুপুর ঠাকুরপো ২’তে স্বস্তিকা অভিনয় না করার পেছনে তার অতিরিক্ত পারিশ্রমিককে দায়ী করেছিলো প্রযোজনা সংস্থা। তবে স্বস্তিকার এমন বক্তব্যে এখন অনেকটাই স্পষ্ট যে, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের অপেশাদারমূলক আচরণের কারণেই তিনি কাজটি করেননি।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.