মণিপুর, মিজোরাম ও নাগাল্যান্ডে বিদেশিদের জন্য বিধিনিষেধ শিথিল

বাংলাদেশিদের জন্য সুখবর। প্রতিবেশী ভারতের নাগাল্যান্ড, মিজোরাম বা মণিপুর বেড়ানোর সুযোগ চলে এল হাতের মুঠোয়। এই তিন রাজ্যে বেড়ানোর দরজা খুলে দিল ভারত সরকার।

উত্তর-পূর্ব ভারতের নাগাল্যান্ড, মিজোরাম, মণিপুর ছাড়াও সিকিম ও অরুণাচল প্রদেশে বিদেশিদের যাতায়াতের ওপর প্রচুর বিধিনিষেধ ছিল। কিন্তু ভারতীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ছয় দশকের পুরোনো নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল তিনটি রাজ্য থেকে।

ভারতীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রের খবর, সিকিম ও অরুণাচল প্রদেশে বিদেশিদের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার বিষয়টিও বিবেচনা করা হচ্ছে।

ভিসা নিয়ে ভারতে এলেও বিদেশি কূটনীতিকেরাও এত দিন ভারতের সব রাজ্যে ভ্রমণের সুবিধা পেতেন না। ফলে পর্যটন মার খাচ্ছিল এত দিন। এবার পর্যটন বিকাশের স্বার্থে বিদেশিদের জন্য শিথিল করা হলো উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বেড়ানোর বিধিনিষেধ।

তবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, চীন, আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের নাগরিকেরা এই সুবিধা পাবেন না। তাঁদের বিশেষ অনুমতি নিয়েই আসতে হবে।

বিদেশিদের জন্য এত দিন নিষেধাজ্ঞা থাকলেও ভুটানের নাগরিকেরা কিন্তু এই সুবিধা আগে থেকেই পেয়ে আসছেন।

মণিপুরে ভারতীয়রা নির্বিঘ্নেই প্রবেশ করতে পারলেও মিজোরাম ও নাগাল্যান্ডে প্রবেশ করতে হলে এ দেশের নাগরিকদেরও ইনার লাইন পারমিট বা বিশেষ অনুমতি নিতে হয়। পাসপোর্ট-ভিসার বাইরে বিদেশিদেরও সেই অনুমতি লাগবে কি না, সেটা জানা যায়নি।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, এই নির্দেশ ১ এপ্রিল থেকেই কার্যকর করা হচ্ছে।

ভারত সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন ত্রিপুরায় নিযুক্ত বাংলাদেশের সহকারী হাইকমিশনার শাখাওয়াত হোসেন। তাঁর মতে, এর ফলে দুই দেশের বন্ধুত্ব আরও বাড়বে। বাংলাদেশ থেকে বহু পর্যটক আসবেন সীমান্তবর্তী মিজোরাম এবং নাগাল্যান্ড ও মণিপুরের মতো সুন্দর রাজ্যের পর্যটনকেন্দ্রগুলো দেখার জন্য।



Leave a Comment

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.