‘জানতাম ভবিষ্যতে কোটা পদ্ধতি নিয়ে সমস্যা হবে’

একদল ছাত্র আত্মহত্যা করতে গিয়ে পুলিশের হাতে আটক হয়। তারপর তাদের আদালতে হাজির করা হয়। কেন তারা আত্মহত্যা করতে গিয়েছিল? বিচারকের এমন প্রশ্নের জবাবে তারা বলে, ‘আমরা এতগুলো ছাত্র বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করে দুই বছর ধরে বেকার অবস্থায় কাটাচ্ছি। আমরা এখন পুরো সমাজের কাছে বোঝা হয়ে গেছি।’ তারা আরো বলে, ‘এই কোটা সিস্টেমের কারণে আমরা চাকরি পাচ্ছি না। দেশের সর্বস্তরে যোগ্যদের চাকরি দিতে হলে কোটা সিস্টেম তুলে দিতে হবে।’

এটুকু পড়ে পাঠক হয়তো এ সময়ে চলমান শিক্ষার্থীদের কোটা সংস্কার আন্দোলনের কথা ভাবছেন। আসলে এটি ২০০২ সালের ৭ ডিসেম্বর মুক্তি পাওয়া ‘বোমা হামলা’ সিনেমার একটি দৃশ্য। আজ থেকে ১৬ বছর আগে নির্মাতা মালেক আফসারি নির্মাণ করেছিলেন ‘বোমা হামলা’। ১৬ বছর আগে এমন ভাবনা ভেবেছিলেন এই নির্মাতা। সিনেমাটি পরিচালনার পাশাপাশি এর চিত্রনাট্য রচনা করেন তিনি। সিনেমায় কোটা পদ্ধতির এই দৃশ্যটি ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ভাইরাল হয়েছে।



১৬ বছর আগে এমন ভাবনার রূপায়ন পর্দায় কেন তুলে ধরা হয়েছিল এমন প্রশ্নের জবাব খুঁজতে রাইজিংবিডির এই প্রতিবেদক কথা বলেন নির্মাতা মালেক আফসারির সঙ্গে। মালেক আফসারি বলেন, ‘তখনই জানতাম ভবিষ্যতে কোটা পদ্ধতি নিয়ে সমস্যা তৈরি হবে। তখনো টুকটাক এই বিষয় নিয়ে লেখালেখি হতো। বিভিন্ন প্রবন্ধে এটা লেখা হতো। যদিও তখন বিষয়টি এত প্রচার পায়নি। ওখান থেকেই আমার এই ভাবনাটা আসে। আমার কাছে তখনই মনে হয়েছিল, ভবিষ্যতে এটা বড় ফ্যাক্ট হতে পারে। যে কারণে আমার ‘বোমা হামলা’ সিনেমায় আমি বিষয়টি তুলে ধরেছিলাম। এখনও এই সিনেমাটি পেক্ষাগৃহে চলে।’

‘বোমা হামলা’ সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন মান্না, শিমলা, ডিপজল, ময়ূরী। উল্লেখ্য কোটা পদ্ধতির সংস্কারের দাবিতে গত ৮ এপ্রিল থেকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করে আসছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.