আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হবেন রক!

বর্তমানে হলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় তারকা রক খ্যাত ডোয়াইন জনসন। রেসলিংয়ের মাঠে দীর্ঘদিন দাপিয়ে বেড়িয়েছেন তিনি। সেখান থেকে বিরতি নিয়ে সিনেমায় নাম লিখিয়ে পেয়েছেন আকাশ ছোঁয়া জনপ্রিয়তা।

এবার শোনা যাচ্ছে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট পদে লড়তে যাচ্ছেন তিনি। গুঞ্জন উস্কে দিচ্ছেন তার ভক্তরা। এক সপ্তাহ আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় রকের দেয়া এক বক্তব্যকে কেন্দ্র করে বিষয়টি নিয়ে কয়েক ধাপ এগিয়ে চিন্তা করছেন ভক্তরা।

ওই ভিডিও বার্তার ক্যাপশনে রক লিখেছেন, আপনারা কোথায়? আমাদের দেশ পঙ্গু হয়ে গেছে এবং হাঁটু গেড়ে বসে পরিবর্তনের আশায় প্রার্থনা করছে। আমাদের সহানুভূতিশীল নেতারা কোথায়?

রক আরও লেখেন, দেশের সবচেয়ে কঠিন সময়ে যেই নেতা দেশকে এক করতে পারেন, অনুপ্রেরণা দিতে পারেন, পদক্ষেপ গ্রহণ করে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে পারেন, সব রঙের মানুষকে আপন করে নিতে জানেন, যে নেতা বলতে পারেন যে আমরা পারি, একসঙ্গে হয়ে পরিবর্তন আনতে এমন নেতা কোথায়?

ওই পোস্টে রক আরো লেখেন, আপনারা যেহেতু আছেন, একদিন নিশ্চয়ই এমন শক্তিশালী নেতা আসবেন। পরিবর্তনের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে।

রকের এই বক্তব্যের পর থেকেই তার ভক্তরা চাইছেন তাদের প্রিয় তারকা যেন প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমেরিকার দায়িত্ব নেন।

ওডসচেকার ডটকম নামের একটি বেটিং ওয়েবসাইটের জরিপে দেখা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পদের প্রশ্নে জনগণের ভোটে তৃতীয় স্থানে আছেন ডোয়াইন জনসন। সোশ্যাল মিডিয়ার শক্তিশালী বক্তব্যের পর তার ভোট ৩.৩৪ শতাংশ বেড়ে গেছে। প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে আছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জো বিডেন।

তাহলে কি ডোয়াইন জনসন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হচ্ছেন? এমন প্রশ্ন এখন আমেরিকাসহ বিশ্বের নানা প্রান্তের ভক্তদের।

প্রসঙ্গত, ডোয়াইন জনসনকে সর্বশেষ দেখা গিয়েছে ‘হবস এন্ড শ’, ‘জুমানজি : দ্য নেক্সট লেভেল’ সিনেমায়। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে তার অভিনীত ‘জঙ্গল ক্রুজ’ এবং ‘ব্ল্যাক অ্যাডাম’ নামের আরও দুটি সিনেমা।

সূত্রঃ জাগোনিউজ২৪

Leave a Comment

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.