‘আমি ২০ জন স্বামীকে বিছানায় তৃপ্তি দিয়েছি’

নারীদের ভোগের সামগ্রী হিসেবেই দেখেন আইএস জঙ্গিরা। এই খবর পুরোনো। তবে নতুন করে পালিয়ে আসা এক নারী এবার আরো নৃশংসতার খবর দিল।

তিনি জানান, এক একজন জঙ্গির লালসার শিকার প্রায় একাধিক মহিলা। এবিষয়ের ওপর কাজ করার বিশেষ দায়িত্ব নিয়েই ওই এলাকায় গিয়েছিলেন জইনাব। জইনাবকে এক নির্যাতিতা জানিয়েছেন, ‘বাধ্য হয়ে বারবার কুমারী হয়ে ২০ জঙ্গি স্বামীকে সঙ্গ দিতে হয়েছে আমাকে।’

এমনকি, কুমারিত্ব ফিরে পেতে তাকে অস্ত্রপচার করাতে হয়েছে। আর বারবারই আমি ২০ জন স্বামীকে বিছানায় তৃপ্তি দিয়েছি। ‘দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট’র একটি প্রতিবেদনে জইনাব জানিয়েছেন, সিরিয়া ও ইরাকে নারীর শারিরীক নির্যাতনকে ব্যাপক মাত্রায় শিল্পের স্তরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। জইনাবের মতে একটি আইএস জঙ্গিদের কৌশল।



সিরিয়ায় আইএস, বিরোধী অপর জঙ্গিগোষ্ঠী ক্ষমতা বাড়াতে চিকিত্‍সা করাচ্ছে। এমনতি তারা নিজেদের স্ত্রীদের নৃংশস চারে লিপ্ত হতে বাধ্য করছে। আইএসে কবল থেকে বেঁচে ফেরা অনেকেই জানিয়েছে, শিশুকন্যাদেরও বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে (প্রচার অযোগ্য শব্দ) করছে আইএস জঙ্গিরা। এমনকি তাদের সঙ্গে বিকৃত যৌন আচরণো করা হচ্ছে। এই কারণেই বেশ কিছু শিশু গর্ভবতী হলে তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.